|

বিজ্ঞান অনুশীলন বই ৬ষ্ঠ শ্রেণি ৫ম অধ্যায় প্রশ্ন ও উত্তর

বিজ্ঞান অনুশীলন বই ৬ষ্ঠ শ্রেণি ৫ম অধ্যায়: শিক্ষার্থীরা এই অভিজ্ঞতার মাধ্যমে দলীয়ভাবে হাতের কাছে পাওয়া যায় এমন উপাদান দিয়ে একটা নৌকার মডেল তৈরি করবে, আগে থেকেই নির্দিষ্ট করে দেওয়া যৎসামান্য খরচের মধ্যে কোন দলের নৌকা কত বেশি ওজন নিয়ে ভেসে থাকতে পারে সেটাই চ্যালেঞ্জ। অভিজ্ঞতার শুরুতেই তারা বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের বিভিন্ন ধরনের নৌকার মডেলের সাথে পরিচিত হবে।

মালবাহী নৌকা, নৌকাবাইচের নৌকা, জেলে নৌকা ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের নৌকা দেখে কোন নৌকা কোন কাজে ব্যবহৃত হয় তা নৌকার গঠন থেকে ধারণা করার চেষ্টা করবে। এরপর শিক্ষার্থীদের নিজেদের নৌকা তৈরির পালা! তারা তাদের বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে বিভিন্ন বস্তুর মধ্যে কোনটি পানিতে ভেসে থাকে আর কোনটি ডুবে যায় তারা সেটা পর্যবেক্ষণ করবে।

নিজেরা আলোচনা করে এবং বিভিন্ন পরীক্ষণের মাধ্যমে কোন বস্তু কেন পানিতে ভাসে তা অনুসন্ধান করবে। একইসাথে পানির ঘনত্বের সাথে এর কী সম্পর্ক আছে তাও খুঁজে বের করবে। তারপর প্রতিটি দল তাদের নৌকার মডেল বানিয়ে প্রদর্শন করবে এবং কোন দলেরটা বেশি ওজন নিয়ে ভেসে থাকতে পারে তা পর্যবেক্ষণ করে কারণ ব্যাখ্যা করবে।


বিজ্ঞান অনুশীলন বই ৬ষ্ঠ শ্রেণি ৫ম অধ্যায় কুইজ প্রশ্ন

প্রশ্ন ১। কোন মাসে বাংলাদেশের খাল-বিল, নদী-নালাগুলো পানিতে ভরে যায়?
উত্তর: আষাঢ়-শ্রাবণ।

প্রশ্ন ২। বাংলাদেশের প্রাচীন ও জরুরি বাহন কোনটি?
উত্তর: নৌকা।

প্রশ্ন ৩। কোন মৌসুমে বাংলাদেশে প্রচুর নৌকা ব্যবহার হয়?
উত্তর: বর্ষাকাল।

প্রশ্ন ৪। বজরা কিসের নাম?
উত্তর: নৌকা।

প্রশ্ন ৫। মালামাল পরিবহনে কোন নৌকা ব্যবহার করা হতো?
উত্তর: সাম্পান নৌকা।

প্রশ্ন ৬। নদী পারাপারে সাধারণত কোন নৌকা ব্যবহার করা হয়?
উত্তর: কোষা নৌকা।

প্রশ্ন ৭। বস্তুর ভাষা বা ডোবা কীসের ওপর নির্ভর করে?
উত্তর: ঘনত্ব।

প্রশ্ন ৮। বস্তুর ঘনত্ব পানির ঘনত্বের চেয়ে বেশি হলে বসু-
উত্তর: ডুবে যাবে।

প্রশ্ন ৯। অ্যালুমিনিয়ামের ঘনত্ব পানির ঘনত্বের চেয়ে বেশি না কম?
উত্তর: বেশি।

প্রশ্ন ১০। মধুর ঘনত্ব পানির ঘনত্বের চেয়ে-
উত্তর: বেশি।

প্রশ্ন ১১। কিশমিশ পানিতে ভাসে কেন?
উত্তর: ঘনত্ব পানির চেয়ে কম।


বিজ্ঞান অনুশীলন বই ৬ষ্ঠ শ্রেণি ৫ম অধ্যায় সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন

প্রশ্ন ১। পরিমাপ কাকে বলে?
উত্তর: কোন কিছুর পরিমাণ নির্ণয় করাকে পরিমাপ বলে।

প্রশ্ন ২। ভর কাকে বলে?
উত্তর: কোনো বস্তুর মধ্যে যে পরিমাণ পদার্থ থাকে তাকে ঐ বস্তুর ভর বলে।

প্রশ্ন ৩। দ্রবণ কাকে বলে?
উত্তর: যখন দুটি বস্তু পরস্পরের সঙ্গে পুরোপুরি মিশে সমসত্ব মিশ্রণ তৈরি করে তখন তাকে দ্রবণ বলে।

প্রশ্ন ৪। দ্রাবক কাকে বলে?
উত্তর: যে বস্তু অন্য বস্তুকে দ্রবীভূত করে, অর্থাৎ যেটি পরিমাণে বেশি, তাকে দ্রাবক বলে

প্রশ্ন ৫। দ্রব কাকে বলে?
উত্তর: যে বস্তু অন্য বস্তুর মধ্যে দ্রবীভূত হয়, অর্থাৎ যেটি বেশি পরিমাণে কম, তাকে দ্রব বলে।

প্রশ্ন ৬। দ্রবণের একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য লিখ।
উত্তর: দ্রবণের একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হলো- দ্রবণের উপাদানগুলো নিজেদের মধ্যে কোনো রাসায়নিক বিক্রিয়া করে না, তাই ভৌত পদ্ধতিতে উপাদানগুলোকে পৃথক করা সম্ভব।

প্রশ্ন ৭। লঘু দ্রবণ কী?
উত্তর: যে দ্রবণে দ্রবের পরিমাণ তুলনামূলক কম তাকে লঘু দ্রবণ বলে।

প্রশ্ন ৮। সম্পৃক্ত দ্রবণ কাকে বলে?
উত্তর: একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ দ্রাবকের মধ্যে যদি দ্রাবকের ধারণ ক্ষমতার পুরোটাই দ্রব দ্বারা পূর্ণ হয়ে যায় তাহলে ঐ দ্রবণকে সম্পৃক্ত দ্রবণ বলে।

প্রশ্ন ৯। অসম্পৃক্ত দ্রবণ কাকে বলে?
উত্তর: নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় দ্রবীভূত দ্রবের পরিমাণ যদি দ্রাবকের সর্বোচ্চ ধারণ ক্ষমতার চেয়ে কম হয় তাহলে তাকে অসম্পৃক্ত দ্রবণ বলে।

প্রশ্ন ১০। সার্বজনীন দ্রাবক কী?
উত্তর: সার্বজনীন দ্রাবক বলতে এমন একটি দ্রাবককে বোঝায় যেটি সকল প্রকার পদার্থকে দ্রবীভূত করতে পারে।

প্রশ্ন ১১। তরল গ্যাস দ্রবণ কাকে বলে?
উত্তর: যে দ্রবণের দ্রাবক হচ্ছে তরল এবং দ্রব হচ্ছে গ্যাসীয় পদার্থ, তাকে তরল গ্যাস দ্রবণ বলা হয়।

প্রশ্ন ১২। তরল গ্যাস দ্রবণের একটি উদাহরণ লিখ।
উত্তর: তরল গ্যাস দ্রবণের একটি উদাহরণ হলো- কোমল পানীয়, যেখানে গ্যাসটি হলো কার্বন ডাইঅক্সাইড, যেটি তরল অবস্থায় কোমল পানীয়তে দ্রবীভূত থাকে।

প্রশ্ন ১৩। সাসপেনশন কাকে বলে?
উত্তর: যেসব মিশ্রণ কিছু সময় রেখে দিলে তার উপাদানগুলো পরস্পর থেকে আলাদা হয়ে পড়ে সেসব মিশ্রণকে সাসপেনশন বলে।

প্রশ্ন ১৪। পাতন কাকে বলে?
উত্তর: কোনো তরলকে তাপ প্রদানে বাষ্পে পরিণত করে তাকে পুনরায় শীতলীকরণের মাধ্যমে তরলে পরিণত করার পদ্ধতিকে পাতন বলে। অর্থাৎ, পাতন = বাষ্পীভবন + ঘনীভবন।


বিজ্ঞান অনুশীলন বই ৬ষ্ঠ শ্রেণি ৫ম অধ্যায় বড় প্রশ্ন

প্রশ্ন ১। কাগজের প্লেন বাতাসে ভেসে থাকার সাথে নৌকা পানিতে ভেসে থাকার মিল আছে কী? ব্যাখ্যা কর।
উত্তর: কাগজের প্লেন ছুঁড়ে মারলে বেশ খানিকক্ষণ বাতাসে ভেসে থাকে। এটি ঘটে এর গঠন আকৃতি ও গতির কারণে। কাগজের প্লেনটি দুইপাশে দুটি পাখা ও সম্মুখ ভাগ সরু করে বানানো হয়। যখন কাগজের মেন ছুঁড়ে মারা হয় তখন কাগজের তৈরি প্লেনের গতিবেগ বেশি থাকায় প্লেনের পাখায় বাতাসের ঘনত্ব ঊর্ধ্বমুখী চাপ দেয় এবং প্লেনটিকে ভেসে থাকতে সাহায্য করে।

গতিবেগ কমলে বাতাসের ঊর্ধ্বমুখী চাপ কমতে থাকে এবং একসময় প্লেনটি পড়ে যায়। কোনো বস্তুর ঘনত্ব তরলের ঘনত্বের চেয়ে বেশি হলে সেই বস্তু উক্ত তরলে ডুবে যাবে, আবার বস্তুর ঘনত্ব তরণের ঘনত্বের চেয়ে কম হলে সেই বস্তু উক্ত তরলে ভেসে থাকবে। কাঠ বা কাঠের তৈরি নৌকার ঘনত্ব পানির ঘনত্বের চেয়ে কম হওয়ায় নৌকা পানিতে ভাসে। এই ঘটনাটি কাগজের প্লেন বাতাসে কিছুক্ষণ ভেসে থাকার সাথে কিছুটা মিল রয়েছে।

প্রশ্ন ২। পরিমাপের প্রয়োজন হয় কেন?
উত্তর: আমাদের দৈনন্দিন জীবনে পরিমাপের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। কারণ জীবনধারণের জন্য প্রতিনিয়তই আমাদেরকে বিভিন্ন জিনিসের আদান-প্রদান করতে হয়। যেমন- কেনাকাটা, কোনো কিছুর পরিমাণ নির্ণয় করা, এমনকি বৈদেশিক বাণিজ্যের ক্ষেত্রেও পরিমাপের প্রয়োজন। কারণ পরিমাণ ব্যতীত এ কাজগুলো কোনোভাবেই সম্পন্ন করা সম্ভব নয়। অর্থাৎ দৈনন্দিন জীবনে বিভিন্ন কাজ যথাযথভাবে সম্পন্ন করতে পরিমাপের প্রয়োজন হয়।

প্রশ্ন ৩। কোনো বস্তুর ভর বলতে কী বোঝায়?
উত্তর: কোনো বস্তুর মধ্যে যে পরিমাণ পদার্থ থাকে তাকে ঐ বস্তুর ভর বলে। অর্থাৎ ভর হলো কোনো বস্তুতে মোট পদার্থের পরিমাণ। ভর বস্তুর নিজস্ব ধর্ম। ভরের একক হচ্ছে কিলোগ্রাম বা সংক্ষেপে কেজি (kg)।

প্রশ্ন ৪। কোনো বস্তুর ঘনত্ব কীসের উপর নির্ভরশীল- ব্যাখ্যা কর।
উত্তর: একক আয়তনের মধ্যে কতটুকু ভর আছে তাই ঘনত্ব। মূলত দুটি বিষয়ের উপর নির্ভর করে। যথা-
(i) বস্তু যে পরিমাণ পরমাণু বা অণু দিয়ে তৈরি তার তর।
(ii) বস্তুর কতটা ঘনভাবে সন্নিবেশিত তার উপর।

প্রশ্ন ৫। সমপরিমাণ গ্যাস অপেক্ষা সোনার ঘনত্ব বেশি কেন?
উত্তর: সমপরিমাণ গ্যাস অপেক্ষা সোনার ঘনত্ব বেশি কারণ- সোনার পরমাণুর ভর অনেক এবং এরা ঘনভাবে সন্নিবেশিত। অন্যদিকে গ্যাসের অণুগুলো ঘন সন্নিবেশিত নয়, চারদিকে ছড়িয়ে যায়, ফলে সোনা অপেক্ষা গ্যাসের আয়তন বেশি হয়ে থাকে এবং ঘনত্ব আয়তন বৃদ্ধির সাথে হ্রাস পেতে থাকে।


🔰🔰 আরও দেখুন: বিজ্ঞান অনুশীলন বই ৬ষ্ঠ শ্রেণি ১ম অধ্যায় প্রশ্ন ও উত্তর
🔰🔰 আরও দেখুন: বিজ্ঞান অনুশীলন বই ৬ষ্ঠ শ্রেণি ২য় অধ্যায় প্রশ্ন ও উত্তর
🔰🔰 আরও দেখুন: বিজ্ঞান অনুশীলন বই ৬ষ্ঠ শ্রেণি ৩য় অধ্যায় প্রশ্ন ও উত্তর
🔰🔰 আরও দেখুন: বিজ্ঞান অনুশীলন বই ৬ষ্ঠ শ্রেণি ৪র্থ অধ্যায় প্রশ্ন ও উত্তর


আশাকরি বিজ্ঞান অনুশীলন বই ৬ষ্ঠ শ্রেণি ৫ম অধ্যায় প্রশ্ন ও উত্তর আর্টিকেল টি আপনাদের ভালো লেগেছে। আমাদের কোন আপডেট মিস না করতে ফলো করতে পারেন আমাদের ফেসবুক পেজ ও সাবক্রাইব করতে পারেন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল।